ইউটিউব সম্পর্কিত সকল তথ্য YouTube

 ইউটিউব হচ্ছে সান ব্রুনো, ক্যালিফোর্নিয়া ভিত্তিক একটি মার্কিন অনলাইন ভিডিও প্ল্যাটফর্ম যেটি তৈরি করেছিলেন জাওয়েদ করিম চাদ হার্লি, এবং স্টিভ চেম। এই তিন বন্ধু বিশ্ব বিদ্যালয়ে পড়াশোনার পাশাপাশি চাকরি করতেন অনলাইন ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান পেপালে এখান থেকেই তাদের মধ্য বন্ধুত্ব তৈরি হয় ৩ বন্দুর ই একটা জায়গায় খুব মিল তারা ৩ জনই নিজ উদ্যোগে কিছু করতে চায় কিন্তু কি করা জায় ভেবে পাচ্ছিলেন না এই ভেবে কেটে গেল অনেক দিন, একদিন সময় নির্ধারণ করে ৩ বন্ধু মিটিং এ বসলো একেক জন একেক আডিয়ার কথা বলতে বলতে হঠাৎ তাদের মাতায় আসল একটা ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট তৈরি কেমন হয়? শুরু হল রিচারস তারা দেখল ইন্টারনেটে ভিডিও শেয়ারিং এর ওয়েবসাইট নেই,


তারপর ২০০৫ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি তারিখে ইউটিউব নামে ডোমেইন রেজিস্টার করা হয় এবং কাজে লেগে গেলেন ২ জন কম্পিউটার প্রকশলি ও একজন ডিজাইনার এক্সপার্ট ডিজাইন এবং ডেবলপমেন্টের কাজ শেষ করে me at the zoo নামে একটি ভিডিও পাবলিশ করেন ইউটিউবের সহ প্রতিষ্ঠাতা জাওয়েদ করিম এবং পরিক্ষা মুলখ সংস্করণ উন্মক্ত করা করেন, কিন্তু পরিক্ষা মুলখ সংস্করণ টি অল্প সময়ের মধ্য ছড়িয়ে পড়তে থাকে দ্রুত বাড়তে থাকে এর ব্যাবহার কারীর সংখ্যা, দরকার হয়ে পড়লো প্রচুর হস্টিং স্পেস এর জন্য দরকার অনেক টাকা চিন্তায় পড়ে গেলেন কোথায় পাবেন এত টাকা তারা ঘুরতে থাকেন বিনিয়োগ কারীদের ধারে ধারে তাদের পরিকল্পনা শুনে বিনিয়োগ করতে রাজী হল স্কুইয়া ক্যাপিটালিস্ট, ব্রডকাস্ট ইয়রসেলফ স্লোগান নিয়ে বিশ্ব ব্যাপী উন্মুক্ত করা হল ইউটিউব এরপর সামনে এগিয়ে যাওয়ার পালা খুব দ্রুতই বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়লো ইউটিউব।



ইউটিউব সম্পর্কিত সকল তথ্য YouTube



ব্যবহার নীতিমালা


বিশ্বের যেকোনো জায়গা থেকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে ইউটিউব এই ওয়েবসাইট টি ভিজিট করলেই খুব সহজে ইউটিউবে পাবলিশ হওয়া যেকোনো ভিডিও দেখতে পারবেন, ইউটিউব ওয়েবসাইটিতে যাওয়ার পর যে ভিডিও গুলো কম সময়ে বেশি দেখা হয়েছে সেই ভিডিও গুলই আপানার সামনে আসবে আপনি চাইলে সার্চ করে আপনার পছন্দ মতো ভিডিও দেখতে পারেন আর কোনও ভিডিও যদি আপানার বিরক্তিকর মনে করেন তাহলে সেই ভিডিও তে রিপোর্ট করে করতিপক্ষ কে জানিয়ে দিতে পারেন 



তাছাড়া আপনি যদি ইউটিউবের অতিরিক্ত সুবিধা পেতে চান তাহলে আপানার জিমেল আকাউন্ট দিয়ে ইউটিউবে সাইন ইন করে নিতে হবে সাইন ইন করার পর আপনি যেকোনো ভিডিও তে লাইক আনলাইক এবং কমেন্ট করতে পারবেন আর যদি আপনি নির্দিষ্ট কোনও চ্যানেল এর ভিডিও মিস করতে না চান তাহলে সেই চ্যানেল সাবস্কাইব করে রাখবেন।



আর একটা কথা যেটা না বললেই নয় সেটা হল আপনি যেই ধরনের ভিডিও দেখতে পছন্দ করেন ইউটিউব সেই ধরনের ভিডিওই আপনার সামনে নিয়ে আসবে, আর কারন হচ্ছে ইউটিউবের নিজস্ব একটা অ্যালগরিদম আছে যেটার মাধ্যমে ইউটিউব আপানার চাহিদা বুঝতে পারে মানে আপনি ইউটিউবে যা যা দেখেন তার সব কিছু ইউটিউবের হিস্টোরি তে জমা হয় এবং সেই হিস্টোরি অনুযায়ী ইউটিউব আপনাকে আপনার সামনে সেই ধরনের ভিডিও পদরশন করে থাকে, এখন আপনি যদি বাংলা ওয়াজ শুনেন তাহলে ইউটিউবে যাওয়ার পর আপনার সামনে শুধু বাংলা ওয়াজ ই আসবে আবার বাংলা গান বা বাংলা ছবি দেখলে বাংলা গান এবং বাংলা ছবিই আসবে।




গুগল কতৃক ক্রয়


ইউটিউব প্রতিষ্টা করার এক বছর পর অর্থাৎ ২০০৬ সালে গুগল কতৃক ক্রয় করার প্রস্তাব আসে তারপর ইউটিউবের তিন প্রতিষ্টাতা সিদ্ধান্ত নেন ইউটিউব কে বিক্রি করে দিবেন এবং ১৬৫ কোটি ডলারের বিনিময়ে গুগলের কাছে বিক্রি করে দেন। ইউটিউব তৈরি প্রধান উদ্দেশ্য ছিলো ভিডিও শেয়ার করে বিনোদন বা মজা করার কিন্তু ইউটিউবকে ব্যবসায়িক রুপ দেওয়া হয়ে ওঠে সময়ের দাবী, গুগল ইউটিউব কে কিনে নেওয়ার পর এর জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পেতে থাকে। আর জনপ্রিয়তার অন্যতম কারন হচ্ছে গুগল এডসেন্স।





আরো কিছু অজানা তথ্য


গুগ্লের পর সবচেয়ে বেশি মানুষ বিভিন্ন বিষয়ে জানতে ইউটিউবে এসে সার্চ করে 



প্রতিমাসে ইউটিউব ব্যাবহার করে প্রায় ২ বিলিয়ন মানুষ যা পুরো ইন্টারনেট দুনিয়ার অর্ধেক 



প্রতিদিন ৩০ মিলিয়নের বেশি মানুষ ইউটিউব দেখছে আর প্রতি মিনিটে প্রায় ৩০০ ঘন্টা ভিডিও আপলোড হচ্ছে 



YouTube এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা জাওয়েদ করিম একজন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আমেরিকান নাগরিক।



প্রতিদিন ফেইসবুকে যে পরিমাণ ইউটিউব ভিডিও শেয়ার করা হয় তা দেখতে আপনার প্রায় ৫০০ বছর লেগে যাবে।



ইউটিউবে সবচেয়ে বেশিবার দেখা হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার গায়ক ‘PSY’ এর ‘Gangnam Style’ ভিডিওটি। এটি বর্তমানে প্রায় ২.৫ বিলিয়ন এরও বেশি বার দেখা হয়েছে। যা এখনো প্রতিনিয়ত বাড়ছে।


Post a Comment

0 Comments