বিজয় কিবোর্ড সম্পর্কিত সকল তথ্য

কম্পিউটার বা ল্যাপটপে বাংলা লেখার জন্য সবার প্রথমে যেই সফটওয়্যার টি আবিষ্কার করা হয় তার নাম হচ্ছে বিজয়, বিজয় কিবোর্ড হল মাইক্রোসফট উইন্ডোজ, ম্যাক ওএস এবং লিনাক্স-এর জন্য একটি গ্রাফিক্যাল লেআউট পরিবর্তক এবং ইউনিকোড ও এএনএসআই সমর্থিত বাংলা লেখার সফটওয়্যার। বিজয়ের প্রথম সংস্করণ প্রকাশিত হয় ১৬ ডিসেম্বর ১৯৮৮ সালে যা ইউনিকোড ভিত্তিক অভ্র কী-বোর্ড আসার পূর্বপর্যন্ত বহুল ব্যবহৃত হয়েছে। ইউনিকোড পরিপূর্ণভাবে প্রচলনের স্বার্থে বিজয়ের দ্বিতীয় সংস্করণ প্রকাশিত হয় ২০১১ সালে। প্রথম সংস্করণের সকল বৈশিষ্ট্য বজায় রেখে দ্বিতীয় সংস্করণে এমন কিছু নতুন বর্ণ যুক্ত করা হয় যা ইউনিকোড ভিত্তিক বাংলা লেখার জন্য প্রয়োজন হয়। প্রকৃতপক্ষে বিজয় এর দ্বিতীয় সংস্করণ সম্পূর্ণ প্রয়োগ করা হয়েছে বিজয় এর ইউনিকোড এবং গোল্ড সংস্করণে।


বিজয় কিবোর্ড সম্পর্কিত সকল তথ্য bijoy



বিজয় কিবোর্ডের প্রতিষ্টাতা

বিজয় কিবোর্ড এর মূল উদ্ভাবক ও প্রতিষ্টাতা হচ্ছেন বাংলাদেশের ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তিনি বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএস) সভাপতি ছিলেন। মোস্তাফা জব্বারের কর্মজীবন শুরু হয় ১৯৭২ সালে সাংবাদিকতার মধ্য দিয়ে। এরপর ১৯৭৩ সালে তিনি ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে তিনি ১৯৮৭ সালে তিনি ব্যবসায় প্রবেশ করেন। এবং সেই বছরের ১৬ মে তিনি কম্পিউটারে কম্পোজ করা বাংলা সাপ্তাহিক পত্রিকা আনন্দপত্র প্রকাশ করেন। ১৯৮৮ সালের ১৬ ডিসেম্বর তিনি প্রকাশ করেন বিজয় বাংলা কীবোর্ড ও সফটওয়্যার। সেটি প্রথমে মেকিন্টোস কম্পিউটারের জন্য প্রণয়ন করেন। পরে ১৯৯৩ সালের ২৬ মার্চ তিনি উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের জন্যও বিজয় বাংলা কীবোর্ড ও সফটওয়্যার প্রকাশ করেন।



ব্যবহার নীতিমালা

একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপে উইন্ডোজ দেওয়ার পর শুধু ইংরেজিতে টাইপিং বা লেখালেখি করতে পারবেন, বাংলা লিখতে পারবেন না, বাংলা লেখার জন্য আপনার পিসি অথবা ল্যাপটপে বিজয় কিবোর্ড ডাউনলোড করতে হবে। বিজয় কিবোর্ড ডাউনলোড করার জন্য আপনি গুগলে গিয়ে বিজয় ৫২ ডাউনলোড অথবা বিজয় বায়ান্ন ডাউনলোড সন্ধান করলেই পেয়ে যাবেন। তবে সবথেকে সহজ উপায় হচ্ছে সরাসরি তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে খুব সহজেই বিজয় কিবোর্ড ডাউনলোড করতে পারবেন। 


অভ্র কীবোর্ড সম্পর্কিত সকল তথ্য


বিজয় কিবোর্ড দিয়ে লেখার নিয়ম

কম্পিউটারে বিজয় কিবোর্ড দিয়ো বাংলা লিখতে হলে সবার প্রথমে আপনাকে কিবোর্ডে থাকা স্বরবর্ণ ও ব্যঞ্জনবর্ণ বাটন মুখস্ত করতে হবে। এর জন্য আমি এই টিউটোরিয়ালের নিচে একটি পিডিএফ বই ডাউনলোড লিংক দিয়েছি। আপনি এই বই টি থেকে বিজয় কিবোর্ড দিয়ে স্বরবর্ণ ও ব্যঞ্জনবর্ণ যুক্তবর্ণ লেখার নিয়ম গুলো খুব সহজেই জানতে ও শিখতে পারবেন।


দ্রুত টাইপ শিখতে হলে আপনাকে বেশ কিছুদিন অনুশীলন করতে হবে, কিবোর্ডের বাটন মুখস্থ করতে হবে, কোন বাটনে কোন অক্ষর আছে সেটা ভালো ভাবে মনে রাখতে হবে। আর হ্যাঁ অবশ্যই টাইপিং করার সময় মনিটরের দিকে চেয়ে টাইপিং করবেন। আপনি যদি কিবোর্ডের দিকে তাকিয়ে লেখার অভ্যাস করে ফেলেন তাহলে সেটা সহজে পরিবর্তন করতে পারবেন না। ডদি আপনি মনিটরের দিকে তাকিয়ে লেখার অভ্যাস ন করতে পারেন তাহলে কখনোই পরিপূর্ণ একজন টাইপার ব রাইটার হতে পারবেন না।



বিজয় কিবোর্ড ডাউনলোড করুন

পিডিএফ বই ডাউনলোড করুন


Post a Comment

0 Comments